Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:পত্রিকা




                                               

উনিশ-কুড়ি

উনিশ-কুড়ি হল ভারতের কলকাতার এবিপি লিমিটেড থেকে প্রকাশিত অন্যতম নবীন একটি পাক্ষিক পত্রিকা। এটি বাংলা ভাষায় প্রকাশিত ৩৩-বছরের-পুরানো শিশুতোষ পত্রিকা আনন্দমেলার একটি নতুন বিভাগ হিসাবে শুরু হয়েছিল। এটি কলকাতায় প্রকাশিত হয়। আক্ষরিকভাবে এর নামটির অর্থ ১৯-২০, এবং এর লক্ষ্যপূর্ণ পাঠক কিশোর-কিশোরী ও নবীন বয়স্করা।

                                               

দ্য গার্ডিয়ান

দ্য গার্ডিয়ান ১৮২১ সালে প্রতিষ্টিত যা ১৯৫৯ সাল অবধি দ্য মাঞ্চেস্টার গার্ডিয়ান নামে পরিচিত ছিল, একটি ব্রিটেনের একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকা। বর্তমানে এই পত্রিকার সম্পাদক অ্যালান রুসব্রিজার। ১৯ শতকে স্থানীয় পত্রিকা হিসেবে চালু হওয়া এই পত্রিকাটি পরবর্তিতে জাতীয় পত্রিকায় রূপ নেয় যার বর্তমানে একটি জটিল সাংগঠনিক রূপ বিদ্যমান এবং ইন্টারনেট ব্যবস্থার কল্যাণে এটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে রূপ নিয়েছে। এই প্রকাশনীর দ্য অভসার্ভার ও দ্য গার্ডিয়ান উইকলি নামে দুটি সাপ্তাহিকী প্রকাশ করে থাকে। দ্য গার্ডিয়ান এর প্রতিদিনের প্রকাশন প্রায় ২০৪,২২২ যেটি সংখ্যার দিক দিয়ে দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ এবং দ্য টাইমস এর ...

                                               

প্রবাসী (পত্রিকা)

প্রবাসী বিংশ শতাব্দীর সূচনালগ্নে ব্রিটিশ ভারতবর্ষে প্রবর্তিত একটি সাহিত্য সাময়িকী। এই মাসিক পত্রিকাটি বাংলা ভাষায় প্রকাশিত হতো। এটির সম্পাদক ছিলেন রামানন্দ চট্টোপাধ্যায় এবং কার্য্যাধ্যক্ষ ছিলে আশুতোষ চক্রবর্তী। ১৩০৮ বঙ্গাব্দের বৈশাখ মাসে এর সূচনা সংখ্যা প্রকাশিত হয়েছিল। এ সংখ্যাটি এলাহাবাদের ইন্ডিয়ান প্রেস থেকে মুদ্রিত হয়েছিল। বার্ষিক মূল্য আড়াই টাকা। ছবি, অলংকরণ প্রভৃতিতে পত্রিকাটি ছিল আকর্ষণীয়। অচিরেই পত্রিকাটি জনপ্রিয়তা অর্জ্জন করে। প্রথম সংখ্যার পৃষ্ঠা সংখ্যা ছিল ৪০। প্রথম সংখ্যায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সহ যাদের লেখা ছাপা হয়েছিল তারা হলেন রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়, কমলাকান্ত শর্ম্মা ...

                                               

বাংলা মিরর

বাংলা মিরর হলো ব্রিটিশ বাংলাদেশীদের জন্য একটি সাপ্তাহিক সংবাদপত্র, যা ইংরেজি ভাষায় প্রকাশিত হয়। পত্রিকাটি বাংলা মিরর গ্রুপ এর মালিকানাধীন। পত্রিকার সদর দপ্তর ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডন শহরে অবস্থিত।

                                               

মেন (পত্রিকা)

মেন ছিল একটি আমেরিকান পুরুষ-সমকামী পর্নোগ্রাফিক পত্রিকা। ১৯৮৪ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত এই পত্রিকাটি অ্যাডভোকেট মেন নামে প্রকাশিত হয়েছিল। তারপর এটির নাম পরিবর্তন করে মেন রাখা হয়। লস এঞ্জেলসের স্পেশালিটি পাবলিকেশনস এই পত্রিকাটি প্রকাশ করত। এই পত্রিকায় খোলামেলা নগ্ন পুরুষের আলোকচিত্র থাকত। তার মধ্যে পুরুষ-সমকামী প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য নির্মিত চলচ্চিত্র শিল্পের জনপ্রিয় তারকাদের ছবি থাকত। তাছাড়া এতে ইরোটিক কথাসাহিত্য, ভিডিও সমালোচনা ও অন্যান্য লেখা ফিচার প্রকাশিত হত। এই পত্রিকার গুরুত্বপূর্ণ মডেলদের মধ্যে উল্লেখ্য ছিলেন জেব অ্যাটলাস ও মার্ক ডালটন। ২০০৯ সালের শেষ দিকে ঘোষণা করা হয় যে স্পেশালিট ...

                                               

মানবেন্দ্র পাল

কর্মজীবনে মানবেন্দ্র পাল ছিলেন শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থন বিভাগের প্রকাশন শাখার ডেপুটি ডিরেক্টর। যুগান্তর ও অন্যান্য পত্রিকায় অনেক ছোটগল্প লিখেছেন। সমসাময়িক এমন কোনো পত্রিকা নেই যাতে তিনি লেখেননি। নবকল্লোল পত্রিকায় নিয়মিত লিখতে লিখতে শুকতারা পত্রিকাতে শিশুদের জন্য অজস্র ভৌতিক গল্প ও উপন্যাস লিখেছেন তিনি। প্রায় পঁচিশ বছর ধরে সাহিত্য চর্চা করেছেন মানবেন্দ্র পাল। তাঁর অতিলৌকিক ভৌতিক গল্প শিশু ও প্রাপ্তবয়স্কদের ভেতর জনপ্রিয় ছিল।

                                               

সুধীন্দ্রনাথ ঠাকুর

সুধীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন একজন ভারতীয় বাঙালী কবি, ঔপন্যাসিক ও গল্পকার। তিনি কলকাতার বিখ্যাত ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা ছিলেন দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর। সৌমেন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন সুধীন্দ্রনাথের পুত্র।

                                               

দাসী (পত্রিকা)

দাসী পত্রিকাটি প্রথম প্রকাশিত হয় ১৮৯২ খ্রিস্টাব্দে। এটি ছিল ব্রাহ্মসমাজের দাসাশ্রমের মুখপাত্র। রাজনারায়ণ বসুর আত্ম চরিত এখানেই প্রকাশিত হয়। জগদীশ চন্দ্র বসুর বাংলা রচনা এই পত্রিকাতেই প্রথম প্রকাশিত হয়। ১৮৯৬ পর্যন্ত রামানন্দ চট্টোপাধ্যায় পত্রিকাটির সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন গোবিন্দচন্দ্র গুহ।