Back

ⓘ বাংলাদেশের বিভাগসমূহ




বাংলাদেশের বিভাগসমূহ
                                     

ⓘ বাংলাদেশের বিভাগসমূহ

বাংলাদেশ আটটি প্রধান প্রশাসনিক অঞ্চলে বিভক্ত যাদের বাংলায় বিভাগ হিসাবে অভিহিত করা হয়। প্রত্যেকটি বিভাগের নাম ওই অঞ্চলের প্রধান শহরের নামে নামকরণ করা হয়েছে। বাংলাদেশের বিভাগ গুলো হলো:

  • ঢাকা বিভাগ
  • রংপুর বিভাগ
  • খুলনা বিভাগ
  • ময়মনসিংহ বিভাগ
  • বরিশাল বিভাগ
  • চট্টগ্রাম বিভাগ
  • সিলেট বিভাগ
  • রাজশাহী বিভাগ
                                     

1. ইতিহাস

ব্রিটিশ শাসনামলে তৎকালীন বাংলা প্রদেশে সর্বপ্রথম বিভাগ গঠন করা হয়। সেসময় বর্তমান বাংলাদেশের ভূখণ্ডে রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম এই তিনটি বিভাগ গঠন করা হয়। পরবর্তীতে রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের একাংশ নিয়ে ১৯৬০ সালে খুলনা বিভাগ গঠিত হয়। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে এই চারটি বিভাগ ছিল।

১৯৮২ সালে ঢাকা বিভাগ এবং ঢাকা শহরের ইংরেজি বানান Dacca ঢাক্কা কে পরিবর্তন করে Dhaka ঢাকা করা হয় যাতে বাংলা উচ্চারণের সাথে ইংরেজি বানান আরও সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।

খুলনা বিভাগের একাংশ নিয়ে ১৯৯৩ সালে বরিশাল বিভাগ গঠিত হয়, এবং ১৯৯৮ সালে চট্টগ্রাম বিভাগকে ভেঙে সিলেট বিভাগ প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০১০ সালে ২৫ শে জানুয়ারি বৃহত্তর রংপুআর দিনাজপুর অঞ্চল নিয়ে রংপুর বিভাগ গঠন করা হয়, যা আগে রাজশাহী বিভাগের অন্তর্ভুক্ত ছিল।

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তে অষ্টম বিভাগ হিসেবে ময়মনসিংহ বিভাগ-এর নাম ঘোষণা করা হয়। পূর্বে এটি ঢাকা বিভাগের অংশ ছিল।

                                     

2. বিভাগীয় কমিশনার

বিভাগীয় কমিশনার প্রশাসনিক কাঠামোতে স্থানীয় সরকার পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ পদাধিকারী। ১৮২৯ সালে উপনিবেশ শাসনকালে কমিশনার পদটি সৃষ্টি করা হয়। বিভাগীয় কমিশনারের প্রাথমিক দায়িত্ব হচ্ছে তার অধীনস্থ বিভাগের কেন্দ্রীয় সরকারি দপ্তর ব্যতীত সকল রাজস্ব ও প্রশাসন সংক্রান্ত কাজের তদারকি করা। সাধারণত স্থানীয় সরকার ব্যবস্থায় পূর্ব অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সিনিয়র যুগ্মসচিব বা অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তাগণ কমিশনার হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত হন।

                                     

3. বিভাগের অবস্থান

নিম্নলিখিত টেবিলে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো কর্তৃক পরিচালিত ২০১১ সালের জনসংখ্যা ও আবাসন জনগণনা থেকে পাওয়া হিসেবে বাংলাদেশের তৎকালীন সাতটি বিভাগ সম্পর্কে কিছু পরিসংখ্যান রূপরেখা তুলে ধরা হল।